ঈদের ছুটির দ্বিতীয় দিন আজ বৃহস্পতিবার মেতে উঠেছে বন্দরনগরীর বিনোদনকেন্দ্রগুলো। শিশুরা তো বটেই, সব বয়সী মানুষের কোলাহলে মুখরিত নগরের বিভিন্ন এলাকা। পতেঙ্গা সমুদ্রসৈকত, ফয়’স লেক অ্যামিউজমেন্ট পার্ক, ওয়াটার ওয়ার্ল্ড, চিড়িয়াখানা, শিশু পার্কজুড়ে দিনভর ছিল প্রাণের উচ্ছ্বাস।

দুপুর থেকেই নগরের বেড়ানোর জায়গাগুলোতে ভিড় জমান ঈদের ছুটিতে থাকা মানুষ। ফয়’স লেকে গিয়ে দেখা যায়, পরিবার–পরিজন নিয়ে বড় বড় দলে ঘুরছেন অনেকে। সেখানে ভিড়ও স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি।

ফয়’স লেক কনকর্ড অ্যামিউজমেন্ট পার্কের উপমহাব্যবস্থাপক বিশ্বজিৎ ঘোষ বলেন, ‘বিভিন্ন রাইড এবং সি ওয়ার্ল্ডে সকাল থেকে ভিড় লেগেই আছে। নতুনভাবে রং করা হয়েছে। এবার মানুষ গতবারের চেয়েও বেশি হবে বলে আমরা আশা করছি। আজ বিকেল চারটা পর্যন্ত প্রায় চার হাজার দর্শনার্থী হয়েছে।’

সি ওয়ার্ল্ডে ওয়েব পুল, ফ্যামিলি পুল, মাল্টিস্লাইড, ড্যান্সিং জোন লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠেছে। মেঘ কেটে রোদ উঠায় ওয়াটার পার্ক সি ওয়ার্ল্ডে প্রতি দেখা যায় দর্শনার্থীদের আগ্রহ। ছোটদের সঙ্গে বড়রাও ঝাঁপিয়ে পড়ে পুলে।

প্লাস্টিকের পাখিটি আটকে গেছে বিদ্যুতের খুঁটিতে। ছবি: সৌরভ দাশ

প্লাস্টিকের পাখিটি আটকে গেছে বিদ্যুতের খুঁটিতে। ছবি: সৌরভ দাশস্ত্রী ও ছেলেকে নিয়ে সি ওয়ার্ল্ডে আসা ব্যাংক কর্মকর্তা রাশেদুল ইসলাম বলেন, ‘বাচ্চারা এখানে এলে ইচ্ছেমতো পানিতে দাপাদাপি করে। তাদের সঙ্গে আমরাও করি। কোনো বাঁধন–শাসন নেই। তাই তারা খুব আনন্দ পায়।’

ফয়’স লেকের মতো ভিড় ছিল পতেঙ্গা সমুদ্রসৈকত, পারকি সৈকতসহ চট্টগ্রাম নগরীর আশপাশের বিনোদন স্পটগুলোতেও।
বৃহস্পতিবার দুপুর গড়াতেই সমুদ্রসৈকত এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠেছে। নগরবাসী এবং অন্য শহরে থাকা চট্টগ্রামের মানুষ তো বটেই, দেশের অন্যান্য প্রান্তের মানুষেরাও ঈদের ছুটিতে জড়ো হয়েছেন চট্টগ্রামে।
সাধারণত নেভাল একাডেমিতে ভিড় থাকলেও এবারের ভিড় পতেঙ্গা সমুদ্রসৈকতে বেশি বলে মনে করছেন এসব এলাকায় থাকা দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা। এসব এলাকার নিরাপত্তা ব্যবস্থাও জোরদার করা হয়েছে।

 

ঈদের পরদিন আজ চিড়িয়াখানা দেখতে ভিড় করেন শত শত মানুষ। আজ বেলা সাড়ে ৩টায় চট্টগ্রামের ফ’য়স লেক এলাকায়। ছবি: সৌরভ দাশ

ঈদের পরদিন আজ চিড়িয়াখানা দেখতে ভিড় করেন শত শত মানুষ। আজ বেলা সাড়ে ৩টায় চট্টগ্রামের ফ’য়স লেক এলাকায়। ছবি: সৌরভ দাশপতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) উৎপল কান্তি বড়ুয়া বলেন, সৈকতে আমরা একটি অস্থায়ী কন্ট্রোল রুম করেছি। প্রচুর দর্শনার্থী এসেছে জ।
বেড়ানোর তালিকা থেকে বাদ পড়েনি চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানাও। আজ বেলা তিনটার মধ্যে প্রবেশ করেছে প্রায় ১১ হাজার দর্শনার্থী।
চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক শাহাদৎ হোসেন বলেন, বেলা তিনটার আগেই ১১ হাজার টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। এখনো দলে দলে মানুষ আসছে।

ফ’য়স লেক সি ওয়ার্ল্ডে ছিল দর্শনার্থীদের ঢল। ছবি: সৌরভ দাশ

ফ’য়স লেক সি ওয়ার্ল্ডে ছিল দর্শনার্থীদের ঢল।

 

সুত্রঃ প্রথম আলো

Please follow and like us:

মন্তব্য করুন

A PHP Error was encountered

Severity: Core Warning

Message: PHP Startup: Unable to load dynamic library 'imagick.so' (tried: /opt/alt/php72/usr/lib64/php/modules/imagick.so (libMagickWand-6.Q16.so.2: cannot open shared object file: No such file or directory), /opt/alt/php72/usr/lib64/php/modules/imagick.so.so (/opt/alt/php72/usr/lib64/php/modules/imagick.so.so: cannot open shared object file: No such file or directory))

Filename: Unknown

Line Number: 0

Backtrace: