অবশেষে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে বালিয়াড়ি দখল করে নির্মাণাধীন মার্কেটের উচ্ছেদ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। বুধবার সকাল ১০ টা থেকে লোহার এঙ্গেল দিয়ে নির্মাণাধীন মার্কেট থেকে টিনের ছাউনি তুলে নেওয়া শুরু হয়।

 

বুধবার বিকেলে তিনটার দিকে গিয়ে দেখা যায়, কয়েকজন শ্রমিক মার্কেটের টিনের ছাউনি গুলো তুলে নিচ্ছেন। দুই সারি করে নির্মাণাধীন মার্কেটের প্রথম সারির টিন প্রায় তোলা হয়েছে।

 

সেখানে টিন তুলে নেওয়ার দায়িত্বে নিয়োজিত শ্রমিকদের সাথে কথা হয় প্রতিবেদকের। তারা জানান, সকালে জেলা প্রশাসনের একজন ম্যাজিস্ট্রেট মার্কেটের টিন তুলে নেওয়ার নির্দেশ দেয়। আজ এবং আগামীকালের মধ্যে টিন গুলো তুলে নেওয়া সম্পন্ন হবে।

 

সুগন্ধা পয়েন্টের কয়েকজন ঝিনুক ব্যবসায়ী জানান, ঝুপড়ি থেকে আধুনিক করার জন্য লোহার এঙ্গেল দিয়ে মার্কেটটি নির্মাণ করছিল জেলা প্রশাসন ও বীচ ম্যানেজম্যান্ট কমিটি। এক সপ্তাহ আগে বালিয়াড়িতে লোহার এঙ্গেল পুতার কাজ শেষ হয়। কয়েকদিন ধরে রাতের বেলায় টিনের ছাউনিও দেয়া হয়। কিন্তু হঠাৎ বুধবার সকাল থেকে জেলা প্রশাসনের নিয়োজিত শ্রমিকরা টিনের ছাউনি তোলা শুরু করে। শুনেছি সব গুলো উচ্ছেদ করা হবে।

 

জানা গেছে, উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টের বালিয়াড়ি দখল করে প্রায় ৩০০ টি দোকান নির্মাণ শুরু করে বীচ ম্যানেজম্যান্ট কমিটি। বালিয়াড়িতে স্থায়ীভাবে মার্কেট নির্মাণ করায় ক্ষুব্দ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয় সচেতন মহলে।


বালিয়াড়িতে স্থায়ীভাবে মার্কেট নির্মাণের বিষয়ে সর্বপ্রথম দৈনিক কক্সবাজারে ‘সৈকতে বালিয়াড়িতে স্থাপনা নির্মাণের মহোৎসব’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এরপর টনক নড়ে প্রশাসনের। ওই সংবাদের সূত্রধরে বিভিন্ন সামাজিক ও কক্সবাজার সম্পদ রক্ষা আন্দোলনের নেতাকর্মীরাও আন্দোলন জোরদার করে।

 

দৈনিক কক্সবাজারের নিউজের সূত্রধরে বালিয়াড়ি দখল করে সমুদ্রের ১০০ মিটারের মধ্যে নির্মাণাধীন মার্কেট উচ্ছেদের জন্য গত ৫ নভেম্বর পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সচিব, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব, মৎস্য ও পশু সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান, পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক, কক্সবাজার পুলিশ সুপার, পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক (চট্টগ্রাম) ও পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক

 

 

Source

FB Group: Travelers Of Cox’sBazar

By Member:Reduan Ahamed
Date: 10 February 2019

 
 

মন্তব্য করুন

A PHP Error was encountered

Severity: Core Warning

Message: PHP Startup: Unable to load dynamic library 'imagick.so' (tried: /opt/alt/php72/usr/lib64/php/modules/imagick.so (libMagickWand-6.Q16.so.2: cannot open shared object file: No such file or directory), /opt/alt/php72/usr/lib64/php/modules/imagick.so.so (/opt/alt/php72/usr/lib64/php/modules/imagick.so.so: cannot open shared object file: No such file or directory))

Filename: Unknown

Line Number: 0

Backtrace: